আবরারের ছোট ভাইকেও মা’রধর, নিজেই মুখ খুললেন ফায়াজ (ভিডিও)

0
2825
views

বুয়েট ছাত্র আবরার ফাহাদের ছোট ভাই ফায়াজকে মা’রধর করার অভিযোগ উঠেছে পুলিশের বিরুদ্ধে। আজ বুধবার (০৯ অক্টোবর) বুয়েট ভিসি অধ্যাপক সাইফুল ইসলাম কুষ্টিয়ায় আবরারদের বাড়িতে গেলে এলাকাবাসীর সঙ্গে পুলিশের সংঘ’র্ষ বাধে। এ সময় আবরারের ছোট ভাইসহ আরও তিনজন আহত হয়।এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, আজ বুয়েট ভিসি আবরারের ক বর জিয়ারত করতে কুষ্টিয়া গিয়েছিলেন। সেখানে গিয়ে তিনি আবারারের আত্নীয়-স্বজন ও এলাকাবাসীর তোপের মুখে পড়েন। এসময় এলাকবাসীর ব্যাপক প্রশ্নবানেও জর্জরিত হন তিনি। এসময় তিনি কেবল আবরারের ক’বরটাই জিয়ারত করতে পেরেছেন। আবরারের বাড়িতে ঢুকতেই পারেননি। বিক্ষু’ব্ধ এলাকাবাসী তাকে বাধা দেন।

 

এদিকে ভিসির নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা পুলিশের সাথে এলাকাবাসীর সংঘ’র্ষের ঘটনা ঘটে।এ ঘটনায় আবরারের ছোট ভাই ফায়াজ, তার ফুপাতো ভাইয়ের স্ত্রী ও আরও একজন নারী আ’হত হন।আলাপকালে ফায়াজ বলেন, আমি আবরারের ছোট ভাই। আজ আমাদের এখানে ভিসি সাহেব এসেছিলেন। এখানে এসে তাঁর আমার মা’র সাথে দেখা করা উচিত ছিল। তিনি এখানে দেখা করতে তো আসলেনই না বরং তিনি যখন ফিরে যাচ্ছিলেন এবং আমি তাঁর সাথে কথা বলতে যাই। তখন এখানকার দায়িত্বে থাকা অ্যাডিশনাল এসপি (অতিরিক্ত পুলিশ সুপার) মোস্তাফিজুর রহমান আমার বুকে কনুই দিয়ে আঘা’ত করেন এবং কালকেও যখন আমার ভাইয়ের জা’নাজা হয় তখন তিনি বলেছিলেন দুই মিনিটের মধ্যে জা’নাজা শেষ করতে হবে। কিভাবে তিনি এটা বলেন? আজ এখানে আমার ভাবি ছিল, তাঁকে বেধ’ড়কভাবে পুলিশ দিয়ে মা’রা হয়েছে। তার কাপড়-চোপড় টেনে তাঁর শ্লী’লতাহানি পর্যন্ত করা হয়েছে। এটা বাংলাদেশের কোন ধরনের পুলিশ?

 

ফায়াজ আরও জানান, গতকাল তার ভাইয়ের জানাজার সময় অ্যাডিশনাল এসপি (অতিরিক্ত পুলিশ সুপার) মোস্তাফিজুর রহমান বলেছিলেন, দুই মিনিটে যেন জানাজা শেষ করা হয়।কুষ্টিয়ার পুলিশ সুপার (এসপি) এস এম তানভীর আরাফাত বিষয়টিকে সম্পূর্ণ অস্বীকার করে কালের কণ্ঠকে বলেন, আবরারের বড় ভাই ভিসি সাহেবকে শা’রীরিকভাবে লা’ঞ্ছি’ত করতে হাত তুলেছিলেন। মোস্তাফিজ (অ্যাডিশনাল এসপি, ডিএসবি) সেটা ঠেকিয়েছেন। এটাই তার অপ’রাধ।এর আগে সকালে ছাত্রলীগ নেতাদের পিটু’নিতে মা’রা যাওয়া বুয়েট ছাত্র আবরারকে দাফনের এক দিন পর কুষ্টিয়ায় তার বাড়ির উদ্দেশে যান ভিসি অধ্যাপক সাইফুল ইসলাম। সূত্র : কালের কণ্ঠ

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here