ছাত্রীকে আ’টকে রেখে ২০ দিন ধরে ধ’র্ষণ গৃহশিক্ষকের

ছাত্রীকে আ’টকে রেখে ২০ দিন ধরে ধ’র্ষণ গৃহশিক্ষকের

স্কুলছাত্রীকে তুলে নিয়ে আ’টকে রেখে ২০ দিন ধরে ধ’র্ষণ করেছে গৃহশিক্ষক। খবর পেয়ে অভি’যান চালিয়ে ধ’র্ষণে সহায়তাকারী আকলিমা বেগমকে (৪৫) গ্রে’ফতার করেছে র‍্যাব। সেই সঙ্গে স্কুলছাত্রীকে (১৩) উ’দ্ধার করা হয়েছে।সোমবার সকাল ১০টার দিকে পটুয়াখালী শহরের সবুজবাগ এলাকায় অভিযান চালিয়ে স্কুলছাত্রীকে উ’দ্ধার ও ধ’র্ষকের সহযোগী আকলিমা বেগমকে গ্রে’ফতার করা হয়। তবে অভি’যানের বিষয়টি টের পেয়ে গৃহশিক্ষক মাসুদ পা’লিয়ে যায়।

 

বিষয়টি নিশ্চিত করে পটুয়াখালী র‍্যাব-৮-এর ভারপ্রাপ্ত কোম্পানি কমান্ডার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. রইছ উদ্দিন বলেন, ২০ আগস্ট সকালে বিদ্যালয়ের উদ্দেশ্যে বাড়ি থেকে বের হয় আবদুল হাই বিদ্যানিকেতনের অষ্টম শ্রেণির ওই শিক্ষার্থী। পথিমধ্যে স্কুলছাত্রীকে অপ’হ’রণ করে নিয়ে যায় গৃহশিক্ষক মো. মাসুদ রানা শুভ (২৬) ও তার সহযোগী আকলিমা বেগম। অনেক খোঁজাখুঁজির পরও স্কুলছাত্রীকে না পেয়ে ২১ আগস্ট পটুয়াখালী সদর থানায় লিখিত অভিযোগ দেন ছাত্রীর মা। সেই সঙ্গে মেয়েকে উ’দ্ধারে র্যাবের সহযোগিতা চান তিনি।

 

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. রইছ উদ্দিন আরও বলেন, ওই ছাত্রীকে তুলে নিয়ে অ’জ্ঞাত স্থানে আ’টকে রেখে ২০ দিন ধরে ধ’র্ষণ করছে গৃহশিক্ষক মাসুদ রানা। ধ’র্ষণে সহযোগিতা করেছে আকলিমা বেগম। সোমবার গোপন সংবাদের ভিত্তিতে শহরের সবুজবাগের মনু ফকিরের বাড়ির ভাড়াটিয়া আকলিমা বেগমের বাসায় অ’ভিযান চালিয়ে ছাত্রীকে উ’দ্ধার করে র‍্যাব। সেই সঙ্গে আকলিমা বেগমকে গ্রে’ফতার করা হয়। এ সময় ধ’র্ষক মাসুদ রানা কৌশলে পালিয়ে যায়। পরে আকলিমা বেগমকে সদর থানায় হস্তান্তর করা হয়। পাশাপাশি স্কুলছাত্রীকে পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়।

সংবাদটি শেয়ার করুন




© All rights reserved © 2019 viewer.com.bd
Design BY NewsTheme