আক্রান্তের সংখ্যা বেড়েই চলেছে মালয়েশিয়ায়, আসতে পারে নতুন সিদ্ধান্ত

চলমান মহামারি করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা বেড়েই চলেছে মালয়েশিয়ায়। সংক্রমণ রোধে নতুন সিদ্ধান্ত নিতে যাচ্ছে সরকার। এমনটিই জানান দিলেন, দেশটির প্রধানমন্ত্রী তানশ্রী মহিউদ্দিন ইয়াসিন। ১৫ সেপ্টেম্বর মালয়েশিয়াডে উপলক্ষে জাতির উদ্দেশ্যে ভাষণ দেয়ার সময় তিনি এ কথা জানান।

 

তিনি তার ভাষণে বলেন, মালয়েশিয়াতে আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরগুলো খুলে দিতে এখনই তাড়াহুড়ো করবে না কারণ দেশে এখন প্রতিদিন কোভিড-১৯ এর আক্রান্তের সংখ্যা বেড়েই চলেছে।

বিমানবন্দর খুলে দেয়ার পরিবর্তে সীমান্ত নিয়ন্ত্রণ বাড়িয়ে দেয়া হবে। বিশেষত অবৈধ অভিবাসীদের প্রবেশের বিষয়টি নিয়ন্ত্রণে রাখা জরুরি। কারণ বর্ডার দিয়ে প্রবেশকারীদের মাধ্যমে কোভিড-১৯ এর ভাইরাস ছড়িয়ে যেতে পারে।

 

কোভিড-১৯ সংক্রামিত ব্যক্তিদের আগমণ রোধে জাতীয় সীমান্ত নিয়ন্ত্রণ আরও বৃদ্ধি করা হবে বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী মহিউদ্দিন ইয়াসিন। বিশেষ বার্তায় তিনি বলেন, বিনিয়োগ এবং আমদানী রপ্তানির কাজে জড়িত ব্যবসায়ী এবং শিক্ষার্থীদের উপর কঠোর নিয়ম আরোপ ছাড়া বাকিদের মালয়েশিয়া প্রবেশ এখনো নিষিদ্ধ রয়েছে।

দেশে এখনো কোভিড-১৯ এর বিস্তার মোকাবিলায় সরকার কঠোর চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে তবে বর্তমানে দেশে আক্রান্তের সংখ্যা বৃদ্ধি পাচ্ছে যা সরকারকে নতুন সিদ্ধান্ত নিতে ভাবিয়ে তুলেছে। অন্যান্য দেশ গুলোতে আক্রান্তের সংখ্যা কমিয়ে আনার চেষ্টা চালালেও এখনো কমার লক্ষ্মণ দেখা যাচ্ছেনা। আসলে বেশ কয়েকটি দেশ আবারও নতুন করে আক্রান্তের সংখ্যা বৃদ্ধি পাচ্ছে।

 

প্রধানমন্ত্রী বলেন, বিশ্বজুড়ে জনগন যদি সতর্ক না হয়ে মহামারিকে অবহেলা করে তাহলে একই ঘটনা বারবার ঘটবে নিয়ন্ত্রণ হবেনা। মালয়েশিয়ায় করোনা পরিস্থিতি স্বাভাবিক ও নিয়ন্ত্রণে আসলেও বর্তমানে আবারও বেড়ে গেছে। মুহিউদ্দিন ইয়াসিন বলেন, মালয়েশিয়াতে আক্রান্তের হার বৃদ্ধি পেলে সরকার আবারও পরিপূর্ণ লকডাউন বা এমসিও আবার ঘোষণা করবে।

মতামত দিতে চান?

Please enter your comment!
Please enter your name here