করোনায় মৃত ৬১ জনকে দাফন করা সেই কাউন্সিলরও আক্রান্ত

ক’রোনা ভাইরা’সে আক্রান্ত মৃ’ত ব্যক্তিদের কাছে স্বজনরাই যখন কাছে ভিড়ছেন না, সেই সময় তাদের দা’ফনে এগিয়ে আসেন নারায়ণগঞ্জের কাউন্সিলর মাকসুদুল আলম খন্দকার খোরশেদ। শুধু তাই নয়, ক’রোনা ভাই’রাস সংক্রা’ন্ত যেকোন ধরণের সহযোগিতা, মধ্যবিত্তের ঘরে নীরবে ত্রাণ পৌঁছিয়ে দেয়া, সবজি বিতরণসহ নানা ধরণের কাজ করে যাচ্ছিলেন তিনি।

 

মানবিক কাজ করে দেশে-বিদেশে আলোচিত এই জনপ্রতিনিধি নিজেই এখন করো’না ভাইরাসে আ’ক্রা’ন্ত। আজ শনিবার তার নমুনা পরীক্ষার রিপোর্টে ক’রোনা পজিটিভে এসেছে। এর আগে তার স্ত্রীও ক’রোনায় আ’ক্রা’ন্ত হয়ে আইসোলেশনে রয়েছেন।

 

করো’না আ’ক্রান্তের বিষয়টি তিনি নিজেই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে জানিয়েছেন। তিনি লেখেন, ‘আলহামদুলিল্লাহ। হাসবুনিল্লাহি ওয়া নিমাল ওয়াকিল। আমার জন্য আমার আল্লাহই যথেষ্ট।

 

আমি আল্লাহর ইচ্ছায় ক’রোনা পজিটিভ হয়েছি। তাই আগামী ৪ দিন আমি স্বশরীরে উপস্থিত না থাকলেও আমাদের দা’ফন, টেলিমেডিসিন, প্লা’জমা সংগ্রহ, সবজি বিতরণ, মধ্যবিত্তের জন্য ভর্তূকি মূল্যে খাবার বিক্রি ও ত্রাণ তৎপরতা অব্যাহত থাকবে ইনশাআল্লাহ। আমার টেলিফোন ২৪ ঘন্টা খোলা আছে। যেকোন প্রয়োজনে আমাকে জানালে আমাদের টিম মেম্বাররা আপনাদের সমস্যা সমাধানে সচেষ্ট হবে, ইনশাআল্লাহ।’

 

কাউন্সিলর খোরশেদ গণমাধ্যমকে বলেন, আজ নমুনা পরীক্ষার রিপো’র্ট পেয়েছি। এতে আমার দে’হে ক’রোনা ভাইরা’সে উপস্থিতি পাওয়া গেছে। শুক্রবার পর্যন্ত ৬১টি ম’রদে’হ দা’ফন করেছি। বর্তমানে নিজ বাড়িতেই আইসোলেশনে আছি। বাড়িতে থেকেই চিকিৎসা নেবো।তিনি আরও জানান, আমি আ’ক্রা’ন্ত হলেও আমার সব কার্যক্রম চলবে। আমার টিম সক্রিয় থাকবে, আমার ফোন চালু থাকবে। আমি যতদিন বেঁচে আছি ক’রোনা যু’দ্ধ থেকে এক বি’ন্দুও নড়বো না।

মতামত দিতে চান?

Please enter your comment!
Please enter your name here