বিয়ের এক মাসের মধ্যেই করোনায় মারা গেলেন স্কুলশিক্ষিকা

104
পড়েছে

মাস খানেক আগে লকডাউনের মধ্যেই বিয়ে করেছিলেন পশ্চিমবঙ্গের চন্দননগরের এই স্কুল শিক্ষিকা। সামাজিক দূরত্ববিধি, মাস্ক সব কিছু মেনেই বিয়ের অনুষ্ঠান হয়েছিল। কিন্তু এক মাসের মধ্যেই করো’না আ’ক্রান্ত হয়ে মা’রা গেলেন হুগলির চন্দননগরের এই স্কুল শিক্ষিকা। আজ মঙ্গলবার বিকেলে ব্যান্ডেল ইএসআই হাসপাতা’লে মৃ’ত্যু হয় সৌমি সাহা নামে ওই শিক্ষিকার।

 

মৃ’তের পরিবার সূত্রে জানা গেছে, বেশ কিছু দিন ধরেই শ্বা’সক’ষ্টজনিত সমস্যায় ভুগছিলেন সৌমি। চিকিৎসার জন্য গত কয়েক দিন আগে চন্দননগর হাসপাতা’লে ভর্তি হয়েছিলেন। জ্বর ও শ্বাষক’ষ্টের জন্য তাঁকে ব্যান্ডেল ইএসআই হাসপাতা’লে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে লালারসের নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষার জন্য পাঠানো হলে গত শনিবার করো’না পজিটিভ রিপোর্ট আসে।

 

এর পর তাঁকে করো’না চিকিৎসার জন্য শ্রীরামপুরের শ্রমজীবী হাসপাতা’লে পাঠানোর সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছিল। কিন্তু শারীরিক অবস্থার অবনতি হওয়ায় স্থা’নান্তর করা সম্ভব হয়নি। আজ মঙ্গলবার বিকেল ৪টার দিকে ওই শিক্ষিকার মৃ’ত্যু হয়।

 

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, চন্দননগর মুন্সিপুকুর এলাকার বাসিন্দা বছর চৌত্রিশের এই শিক্ষিকা পোলবার একটি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষিকা ছিলেন। গত ১৪ জুন চন্দনগরেরই যুবক প্রসূন ঘট’কের সঙ্গে বিয়ে হয় তাঁর। প্রসূন কর্মসূত্রে মুম্বাইয়ে থাকতেন। বিয়ের জন্য সেই সময় মুম্বাই থেকে গাড়িতে করে চন্দননগরে ফেরেন।

মতামত দিতে চান?

Please enter your comment!
Please enter your name here