ব্লেড দিয়ে কেটে দিলেন দুই নারীর লেগিংস!

857
পড়েছে

বিকৃ’তকাম ব্যক্তির লা’লসার শি’কার ভারতের শ্রীরামপুরের দুই নারী। শ্রীরামপুর স্টেশনে নিত্যযাত্রীর ভিড়ে বি’কৃতকাম ওই ব্যক্তি দুই নারীর লে’গিংসে ব্লে’ড চালিয়ে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করেন। তরুণীদের চিৎকারে শ্রীরামপুর স্টেশনে কর্মরত রেল পুলিশের কর্মকর্তারা ধাওয়া করে ওই ব্যক্তিকে ধরে ফেলে। পরে জিআরপির জিজ্ঞাসাবাদে ওই ব্যক্তি নিজের বি’কৃতকামের কথা স্বীকার করে নেন। শেওড়াফুলি জিআরপি ওই ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করেছে। শুক্রবার (১৮ অক্টোবর) এই ঘটনা ঘটে।

 

রেল পুলিশ বলছে, ওই যুবকের নাম সমীর জানা। বাড়ি হুগলির চুঁচুড়ায়। পুলিশি জিজ্ঞাসাবাদে সমীর জানিয়েছেন, এর আগেও এ ধরনের বি’কৃত কা’মনার বশ’বর্তী হয়ে ভিড়ের মাঝে নারীদের অস’তর্ক মূহুর্তে ব্লেড দিয়ে আ’ক্রমণ চালিয়েছেন। বিশেষ করে নারীদের লে’গিংসের ওপর ব্লে’ড চালান সমীর। ব্লে’ডের আ’ঘাতে অনেক সময়ই লে’গিংস ছিঁ’ড়ে গিয়ে র’ক্তপাত হয়। নারীরা লজ্জায় সে কথা প্রকাশ্যে আনতে পারে না। আর নারীদের শরীরের র’ক্ত দেখে উল্লাসে ফেটে পড়েন সমীর।

এ বিষয়ে মনোরোগ বিশেষজ্ঞরা বলছেন, ওই যুবকের এ ধরনের আচরণের মধ্যে অবসেশনের একটা উপাদান আছে। এটা এক ধরনের বাতিক হতে পারে। এই ধরনের বাতিকগ্র’স্তরা যে কোনো কাজ বার বার করতে চায়। অনেক সময় এ ধরনের কাজ করতে না চাইলেও, ইচ্ছার বিরুদ্ধে এই আচরণ করে বসে তারা। ওই যুবক যে নেহাতই মজা বা আনন্দ করার জন্যই নারীদের পোশাকে ব্লে’ড চালিয়ে র’ক্তা’ক্ত করছে, তা নাও হতে পারে। যুবকের দীর্ঘ সাইকো-অ্যানালিসিসের পরই এই ধরনের আচরণের প্রকৃত কারণ জানা যাবে। মোহিত রণদীপ বলেন, এটা আসলে এক ধরনের মানসিক অসুস্থতা।

মতামত দিতে চান?

Please enter your comment!
Please enter your name here